top of page

রাধাভাবে ভোরা গোরা ৷ ৷(#পর্ব_দশ—চলবে)


রাধাভাবে ভোরা গোরা ৷ ৷(#পর্ব_দশ—চলবে)


*#রামানন্দ_রায়_ ও তাঁর রচিত জগন্নাথবল্লভ নাটক*—

"#রামানন্দ_রায়_উড়িষ্যার

রাজা প্রতাপরুদ্রের রাজকর্মচারী ছিলেন , রামানন্দ রায় যে একজন পণ্ডিত, ঈশ্বরপ্রেমিক , এবং সুনিপুন লেখকও ছিলেন তা রাজা প্রতাপরুদ্র জানতেন এবং রাজা প্রতাপরুদ্রের একান্ত অনুরোধেই রামানন্দ মহাভাবরসে পরিপুষ্ট শ্রীশ্রীজগন্নাথবল্লভ নাটকটি রচনা করেন ৷

#রামানন্দ_এই_নাটকটি গোদাবরী তীরে মহাপ্রভুর সঙ্গে সাক্ষাতের আগেই রচনা করেন ৷ কারণ নাটকটিতে মঙ্গলাচরণে নূপুর সুশোভিত নৃত্যপরায়ণ শ্রীকৃষ্ণের স্তবস্তুতির উল্লেখ আছে, কিন্তু শ্রীকৃষ্ণচৈতন্য মহাপ্রভুর কোন বন্দনা নেই , গোদাবরী তীরে মহাপ্রভু এবং রামানন্দের মধুর মিলনে যে মধুরাতিমধুর প্রেমের তরঙ্গ প্রবাহিত হয়েছিল এবং তার পরে রামানন্দ যে সম্পূর্ণরূপে মহাপ্রভুগত প্রাণ হয়ে গিয়েছিলেন , রামানন্দের মহাপ্রভুর সাথে মিলনের পর রামানন্দের গ্রন্থে মহাপ্রভুর বন্দনা থাকবে না, তা হয় না ৷"

#রামানন্দ_রায়ের

ঐ জগন্নাথবল্লভ নাটকটি ব্রজরস মাধুর্যের অপূর্ব মহিমায় রসায়িত তাহার একটি দৃষ্টান্ত—

"#প্রেমচ্ছেদরুজোহবগচ্ছতি_ হরির্নায়ংন চ প্রেম বা স্থানাস্থানমবৈতি নাপি মদনো জানাতি নো দুর্বলাঃ ॥"

#অর্থাৎ_শ্রীরাধা তাঁর সখীকে বলছেন—"সখী ! এই হরি, প্রেমভঙ্গজনিত পীড়া যে কত গুরুতর তা জানে না ৷ প্রেমও স্থানাস্থান জানেনা, মদনও জানেনা যে আমরা কত দুর্বল ৷"

"#এই_শ্লোকটির অন্তনির্হিত তাৎপর্য— এখানে শ্রীরাধা শ্রীকৃষ্ণপ্রেমে জর্জর বেদনাতুর মনের ক্লেশ বর্ণনা করছেন ৷ এই কারণে শ্রীকৃষ্ণকে নিন্দা করে বলছেন—হে নাথ ! প্রেম-ভঙ্গ যে কি হৃদয়বিদারক দুঃখ তা তুমি জাননা ৷ আমরা তোমাকে ভালবেসে মরি, আর তুমি ফিরিয়াও চাও না ৷"

#এই_একটি_মাত্র_শ্লোক

থেকেই বলা যায়—রাধাভাবে আবির্ভূত গম্ভীরাগৃহে শ্রীগৌরাঙ্গ মহাপ্রভুর শ্রীরাধার অভিনয় নয়, সেখানে তিনি প্রকৃতই রাধা হয়ে গিয়েছিলেন ৷ এই কারণেই মহাপ্রভু রামানন্দকৃত এই নাটকটিকে এত সমাদর ও উচ্চ প্রশংসা করতেন এবং নাটকে উল্লেখ্য শ্লোক শ্রবণমাত্রই তিনি ভাবতন্ময় হয়ে পড়তেন ৷

#মহাপ্রভু_কৃষ্ণবিরহে দিব্যোন্মাদ দশাগ্রস্ত হয়ে যে প্রকৃতই রাধা হয়ে গিয়েছিলেন তা মহাপ্রভুর ঐ প্রলাপ উক্তিতেই স্পষ্ট বোঝা যায়—

*#কানুর_লাগিয়া,জাগি পোহাইনু, এ ঘোর আন্ধার রাতি ৷ এতদিনে মুঞি, নিশ্চয় জানিনু, নিঠুর পুরুষ জাতি ॥*

#মহাপ্রভু_পুরুষ হয়েও তাঁর হৃদয় হতে রমণীভাব (#রাধাভাব) গ্রহণ করে অত্যন্ত বিরহের সঙ্গে পুরুষেরই নিন্দা করছেন ৷

0 views0 comments

コメント


Be Inspired
bottom of page