top of page

রাধাভাবে ভোরা গোরা ৷ "(#পর্ব_১১_চলবে)"


রাধাভাবে ভোরা গোরা ৷

"(#পর্ব_১১_চলবে)"



*#বিল্বমঙ্গল_ও_শ্রীকৃষ্ণকর্ণামৃত*—

#ভক্ত_বিল্বমঙ্গল_ও

চিন্তামণি নাম্নী বারবনিতার কথা ভক্ত ও সজ্জন-সমাজে সর্ববিদিত ৷

#বিল্বমঙ্গলের_মনে প্রেমের উচ্ছাস উঠিলে, প্রেমময়কে দেখবার জন্য বৃন্দাবনের পথে পথে ঘুরছিলেন, পথিমধ্যে তাঁর মনে এমনভাবেই বৃন্দাবনেশ্বর ও বৃন্দাবনেশ্বরীর লীলা স্ফূরণ হতে থাকে যে, বিল্বমঙ্গলের শ্রীমুখ হতে অনর্গল ব্রজলীলা বিষয়ের মধুরাতিমধুর শ্লোকাবলী নির্ঝরিত হতে থাকে ৷

সেইগুলিই সঙ্গী পণ্ডিত ও প্রাজ্ঞগণ দ্বারা সংকলিত হয়ে #শ্রীকৃষ্ণকর্ণামৃত"' গ্রন্থ নামে প্রকটিত হয় ৷

#শ্রীকৃষ্ণকর্ণামৃতে ভক্তিমাধুর্যের বিশেষ স্ফূরণ হওয়ায় এটি মহাসামগ্রীরূপে ফুটে উঠে , এবং এই কারণেই মহাপ্রভু তাঁর গম্ভীরা লীলায় শ্রীকৃষ্ণকর্ণামৃতের মধুময় রস নিরন্তর আস্বাদন করতেন ৷ মহাপ্রভুর আস্বাদিত শ্রীকৃষ্ণকর্ণামৃতের একটি শ্লোক—


*#কিমিহ_কৃণুমঃ কস্য ব্রুমঃ কৃতং কৃতমাশয়া কথয়ত কথামন্যাং ধন্যামহো হৃদয়েশয়ঃ ৷মধুর মধুরস্মেরাকারে মনোনয়নোৎসবে কৃপণকৃপণা কৃষ্ণে তৃষ্ণা চিরং বত লম্বতে ॥*

#অর্থাৎ_রাধাঠাকুরাণী

বলছেন—"'আমি এখন কি করব ? কাকেই বা বলব ? শ্রীকৃষ্ণকে পাবার আশা করাও বৃথা ৷ কৃষ্ণ কথা ছেড়ে অন্য ভাল কথা বল ৷ হায় ! হায় ! যাঁকে ছাড়ব বলে মনে করছি, তিনি যে আমার হৃদয়ে শয়ন করে আছে, মধুর-মধুর ঈষৎ হাস্যযুক্ত যাঁর আকার, যিনি মন ও নয়নের আনন্দ দায়ক, সেই শ্রীকৃষ্ণে আমার উৎকণ্ঠা-নিমিত্ত অতি দীনা তৃষ্ণা চিরকাল বর্দ্ধিত হচ্ছে ৷

#এই_শ্লোকটিতে বিরহ-গীতির যে হৃদয়বিদারী তপ্তশ্বাস প্রবাহিত হয়েছে তা কতই না মধুর অথবা মধুর হতেও মধুর ৷

#শ্রীশ্রীচৈতন্যচরিতামৃতে অপূর্ব অভিমত দেওয়া আছে—


*"#ব্রাহ্মণ_সমাজ_সব_বৈষ্ণব_চরিত ৷ বৈষ্ণব সকল পঢ়ে কৃষ্ণকর্ণামৃত ॥*


কর্ণামৃত শুনি প্রভুর আনন্দ হইল ৷ আগ্রহ করিয়া পুঁথি লেখাইয়া নিল ॥


*#কর্ণামৃত সম বস্তু নাহি ত্রিভুবনে ৷ যাহা হৈতে হয় শুদ্ধ কৃষ্ণপ্রেম-জ্ঞানে ॥*


সৌন্দর্য মাধুর্য কৃষ্ণলীলার অবধি ৷ সে জানে যে কর্ণামৃত পঢ়ে নিরবধি ॥"

#মহাপ্রভু_দক্ষিণদেশ ভ্রমণ কালে "'শ্রীকৃষ্ণকর্ণামৃত"' গ্রন্থটি নকল করিয়ে নীলাচলে নিয়ে আসেন এবং গৌড়ীয় ভক্তগণকে দেন এইভাবেই গ্রন্থখানি ভক্তসমাজে বহুল প্রচলিত হয়েছে ৷

0 views0 comments

Comments


Be Inspired
bottom of page