top of page

রাাধাাভাা রাা রাা


"(#পর্ব_আট-১৩/৭/২০)"

#বৈষ্ণব_কবি_চণ্ডিদাস_ও_তাঁর__পদাবলী"'—

#চণ্ডীদাস_বৈষ্ণব

পদ-সাহিত্যের সেরা কবি ৷ তাঁর পদাবলীতে কীর্তন জগৎ এবং বৈষ্ণব সাহিত্যে এক অভিনব সৃষ্টি ৷ তাঁর পদাবলীর ভাব অতি গম্ভীর অথচ অত্যন্ত সরল ভাষা ৷

শ্রীরাধাকৃষ্ণের অপার্থিব প্রেম-বৈচিত্রের সুপরিস্ফুট মর্মস্পর্শী চিত্রাঙ্কনে কবি চণ্ডীদাসের পদাবলী অতুলনীয় ৷

"#যেমন"'—

"'#সই, কেবা শুনাইল শ্যাম-নাম ৷

কানের ভিতর দিয়া

মরমে পশিল গো ,

আকুল করিল মোর প্রাণ॥


না জানি কতেক মধু

শ্যাম-নামে আছে গো ,

বদন ছাড়িতে নাহি পারে ৷

জপিতে জপিতে নাম ,

অবশ করিল গো ,

কেমনে পাইব সই তারে ॥"'

#এখানে বিশেষভাবে লক্ষ্য করতে হবে কলিপাবন মহাপ্রভু জগজ্জীবের উদ্ধার কল্পে যে প্রেম-মাখা নামের ডালি নিয়ে অবতীর্ণ হন, কবি চণ্ডীদাস তাঁর রচিত পদের মাধ্যমে সেই মধু হতে মধুময় নামের তীব্র আকর্ষণ শক্তির উল্লেখ করে শ্রীরাধাঠাকুরাণীর মাধ্যমে নামীর শ্রীমূর্তির সুশীতল পদ তল আহ্বান করেছেন ৷ মনে হয় এই কারণেই মহাপ্রেমিক সন্ন্যাসী মহাপ্রভু গম্ভীরাতে অবস্থানকালীন চণ্ডীদাসের রচিত পদ প্রাণ ভরে পান করে রাধাভাবের নিগূঢ় অমৃতস্পর্শে আত্মহারা হয়ে থাকতেন ৷

#কবির_অন্য_একটি_পদ—


"#বঁধূ_তুমি_সে_আমার_প্রাণ

দেহ মন আদি তোমারে সঁপেছি

কূলশীল জাতি মান ॥


অখিলের নাথ তুমি হে কালিয়া

যোগীর আরাধ্য ধন ৷

গোপ-গোয়ালিণী হাম অতি দীনা

না জানি ভজন পূজন ॥


পিরীতি রসেতে ঢালি তনু মন

দিয়াছি তোমার পায় ৷

তুমি মোর পতি তুমি মোর গতি

মন নাহি আন ভায় ॥

কলঙ্কিনী বলি ডাকে সব লোকে

তাহাতে নাহিক দুখ ৷

তোমার লাগিয়া কলঙ্কের হার

গলায় পরিতে সুখ ॥


সতী বা অসতী তোমাতে বিদিত

ভাল মন্দ নাহি জানি ৷

কহে চণ্ডীদাস পাপ পুণ্য সম

তোমার চরণ খানি ॥"

#পদটির_ভাবার্থ—

শ্রীকৃষ্ণের প্রতি রাধিকাদেবীর যে গভীর অনুরাগ তারই প্রতিচ্ছবি কবি চণ্ডীদাসের এই পদটিতে চরমতম রূপে ফুটে উঠেছে ৷

#যাঁকে_ভালোবেসেছেন,

তাঁর জন্য মান সম্ভ্রম, সুখ-দুঃখ যত কিছু প্রতিবন্ধকতা জীবনে আছে বা আসে শ্রীমতীরাধিকাদেবী সব কিছুকে উপেক্ষা করে সেই কৃষ্ণপ্রেম সাগরে নিজেকে চিরতরে নিমজ্জিত করেছেন ৷ এখন শুধু প্রয়োজন চিরদয়িতের সহিত চিরমিলনের প্রার্থনা এবং তারই রসময় সুমধুর ভাব প্রকাশিত হয়েছে বৈষ্ণব কবি চণ্ডীদাসের অপূর্ব ছন্দময় এই লেখনীর মাধ্যমে ৷

#মহাপ্রভু_শ্রীকৃষ্ণের

প্রতি শ্রীরাধিকাদেবীর গভীর অনুরাগময় আবেদনে অভিভূত হয়ে স্বরূপ দামোদর ও রামানন্দ রায়ের কাছে বার বার চণ্ডীদাসের পদ শুনে গম্ভীরায় ভাব বিহ্বল হয়ে পড়তেন ৷

6 views0 comments

Comentarios


Be Inspired
bottom of page